শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৬:১৪ অপরাহ্ন

মা শব্দ পৃথিবীর শ্রেষ্ট শব্দ

সাহিত্য ডেস্ক ->> / ৬৮ বার পঠিত
সময়: বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১, ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মা শব্দ পৃথিবীর শ্রেষ্ট শব্দ তা নিঃসন্দে বলা যায়। মা কত প্রকার ও কি কি তার সারামর্ম যাদের মা নেই, তারা ছাড়া অন্য কেউ সহজ ভাবে বুঝতে পারবেন না। যাদের মা নেই, তারা বুঝেন মা কি?। মা শব্দের সংক্ষিপ্ত উদাহরণ দিতে গিয়ে বিশ্ব বিখ্যাত সম্রাট নেপোলিয়ান বোনাপার্ট বলেছেন, তোমরা আমাকে একজন শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাদেরকে একটি শিক্ষিত জাতি দেবো ।

একজন শিক্ষিত মা কত প্রজন্মকে যে আলোকিত করতে পারেন তার ইয়ত্তা নেই। বাস্তব জীবনে আমি দেখিছি, একজন মা পারেন তার সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে। কারণ সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হলে মায়ের কোন বিকল্প নেই। তবে আমার এ বয়সে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে দেখেছি, এ সমাজে মায়েরা কতই না লাঞ্চিত হচ্ছেন। সামান্য স্বার্থ আদায়ের নিজের সন্তানরা মা-বাবার উপর হাত তুলছেন।

স্ত্রী’র দ্বার প্ররোচিত হয়ে মা, বাবাকে বাসা-বাড়ি থেকে বের করে দিচ্ছেন। বৃদ্ধ বয়সে মা, বাবা আশ্রয় কেন্দ্র মাথা ঘোজার ঠাই নিতে হচ্ছে। আবার অনেক মায়েরা পেটের দায়ে রাস্তায় ভিক্ষা করছেন। আর তার সন্তান বাবুগিরি-আরাম-আয়েশে বউকে জীবন কাটাচ্ছেন। সেই সব কুলাঙ্গার সন্তান যখন তাদের মা-বাবা বেঁচে থাকবেন তখনই বুঝবেন মা-বাবা কি? আমি দেখেছি, এ সমাজে যারা মা-বাবা সেবা করছেন পরবর্তীতে তার সন্তানেরা তাদের সেবা করছেন না।

মা হলেন সর্বেসর্বা, যাকে ছাড়া আমি অসম্পূর্ণ নই, বরং শূন্য'
আমার মায়ের নাম মোছাঃ জমিলা বেগম। তিনি জন্ম গ্রহন করেছিলেন হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার মক্রমপুর গ্রামে। আমার মায়ের বাবা অথাৎ আমার নানার নাম ছিলো বরাত খা। নানা মারা গেছেন আমার জন্মের আগে। মক্রম গ্রামে খা বাড়িতে মায়ের জন্ম হয়েছিল। আম্মা ছিলেন ৪ ভাইয়ের ১ বোন। ব্যক্তিগত জীবনে আমার আম্মা ছিলেন একজন অসাধারণ নম্র ও ভদ্র।

তিনি ছিলেন পরোকারী ও মানুষকে আপ্যায়ন করতে ভালবাসতেন। আমাদের বাড়ির আশ-পাশের মহিলাদের কোন অর্থনৈতিক সমস্যা হলে তিনি তা সমাধান করতেন। ২০০৩ না ফেরার দেশে চলে যান আম্মা। মৃত্যুকালে আম্মা আব্বা ও আমরা ভাই বোনদের রেখে গিয়েছিলেন। এর মাঝে আব্বাকেও হারালাম ২০১৯ সালের ২৪ এপ্রিল।

আম্মা ও আব্বাকে হারিয়ে আমরা কতটা সুখে আছি, তা আর কেউ বুঝতে পারবেন না। তারপরও সুখ দুঃখের মাঝে নিজেদের সন্তানদের অনাগত ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আব্বা ও আম্মার দোয়া নিয়ে সামনে দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।

আজ বিশ্ব মা দিবস। শুধু বিশ্ব মা দিবসে নয়, অনুভবে সব সময় আমার আম্মা ও আব্বাকে খুঁজে পাই। আমার এক কন্যা ও ১ পুত্র সন্তান রয়েছে, তাদের মুখে দিকে যখন থাকাই আম্মা ও আব্বার স্মৃতি চোখের সামনে ভেসে উঠে। মহান আল্লাহ তালা যেন আমার আম্মা ও আব্বাকে বেহেশত নছিব করেন এ জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করছি। আর পরিবেশে আরেকটি কথা বলবো, যাদের মা, বাবা রয়েছেন দয়া করে কখনও তাদের মনে কষ্ট দেবেন না।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD